চুল পরা বন্ধ করার উপায় । চুল কাটিং 2022 । চুল কাটার স্টাইল । চুল কাটার মেশিন

চুল পরা বন্ধ করার উপায় গুলো হলো : প্রথমতো চুল পরা যদি বন্ধ করতে চান তাহলে ব্যাবহার করতে পারেন রসুন , পিয়াজ এবং আদার রস । প্রতিদিন রসুন , পিয়াজ এবং আদার রস রাতে মাথায় ব্যবাহার করতে হবে । সারা রাত মাথায় রাখার পর সকালে ধুয়ে ফেলতে হবে । এক সপ্তাহ নিয়মিত যদি এই ভাবে ব্যাবহার করতে থাকেন তাহলে খুব ভালো ফলাফল পাবেন ইংশাআল্লাহ ।

১০ টি চুল পরা বন্ধ করার উপায় রয়েছে যা প্রমাণিত । নিচে তা আলোচনা করা হলো :

চুল পরা বন্ধ করার উপায় (3)
চুল পরা বন্ধ করার উপায় (3)

১. ভিটিামিন ই চুল পরা বন্ধ করতে পারে । তাই ভিটামিন ই প্রতিদিন মাথার গোরায় ব্যাবহার করুন । কারন ভিটামিন ই আমাদের মাথার ত্বকের জন্য রক্ত সঞ্চালন বারিয়ে দেয় । এছারাও ভিটামিন ই আমাদের চুলের রং সুন্দর করে তুলে । তাই ভিটামিন ই আমাদের চুলের জন্য অনেক গুরুত্ব পূরর্ণ ।

চুল পরা বন্ধ করার উপায় (7)যেমন : মাছ , মাংস ইত্যাদি।
চুল পরা বন্ধ করার উপায় (7)যেমন : মাছ , মাংস ইত্যাদি।
  1. অনেক সময় আমাদের খাদ্যাভাসে পরিবর্তন হলে অথবা শরীলে যদি প্রোটিনের ঘাটটি হয় তহলে আমাদের চুল পড়ে যায় । তাই খাদ্য তালিকায় প্রোটিন যুক্ত খাবার রাখতে হবে । যেমন : মাছ , মাংস ইত্যাদি।
    ৩. আমাদের নিয়মিত চুল আচরাতে হবে এবং চুলগুলোকে পরিষ্কার রাখতে হবে । চুল আচরালে চুলের গোড়ায় রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পায় ফলে চুলের সাস্থ্য ভালো থাকে । চুল পরিষ্কার না করলে চুলের গোড়ায় খুশকি , ময়লা জমে থাকবে এতে করে মাথার ত্বকে সংক্রমনের আশংকা বৃদ্ধি পাবে ।
চুল পরা বন্ধ করার উপায় (6)
চুল পরা বন্ধ করার উপায় (6)

৪. ভেজা চুল আচরানো যাবে নাহ । কারন ভেজা অবস্থায় চুলের গোড়া সাধারনত নরম থাকে । তাই এই সময় চুল আচড়ালে চুল উঠে যায় ।

৫. শরীলে পানিশূন্যতার কারনেও চুলপড়া বেরে যেতে পারে । তাই প্রতিদিন আপনাকে ২-৩ লিটার পানি খেতে হবে তাহলে আপনার শরীলে পানিশূন্যতার হার কমে যাবে ।

চুল পরা বন্ধ করার উপায় (4)
চুল পরা বন্ধ করার উপায় (4)

৬.চুল পরা বন্ধ করার উপায় এর মধ্যে অন্যতম একটি হলো গ্রিন টি ব্যাবহার। কারন অনেক গবেষনায় দেখা গেছে যে , গ্রিন টি ব্যাবহারের ফলে চুল পড়া অনেকটাই কমে যায় । এক গ্লাাস পানিতে আপনাকে দুটি গ্রিন টি এর পেকেট মেশাতে হবে । তার পর এটি ঠান্ডা করে , আপনার চুলের আগায় এবং গোড়ায় ভালো করে মেশাতে হবে । ১-২ ঘন্টা পড় ধুয়ে ফেলেন । এই ভাবে যাদি একটানা ৭ দিন গ্রিন টি ব্যাবহার করেন তাহলে আপনার চুল পড়া কমে যাবে ।

  1. মাথার ত্বক বেশি তৈলাক্ত রাখা যাবে নাহ । অনেকের মাথা ঘামার কারনে ময়লা জমে যায় । এজন্য চুল পরে যেতে পারে । তাই চুল সিল্কি করার উপায় বা চুল বন্ধ করার উপায় হলো চুলে অ্যালোভেরা বা নিম যুক্ত শ্যাম্পু ব্যাবহার করবেন । এর ফলে মাথা ঠান্ডা থাকবে এবং চুল কম পরবে ।

৮. আপনি কি জানেন সিগারেট খেলে কি কি রোগ হয় ? চুল পরার অন্যতম একটি কারন হলো সিগারেট খাওয়া । কারন ধূমপানের ফলে আপনার মাথার প্রবাহিত রক্তের পরিমাণ কমে যায় । তাই ধূমপান পরিহার করতে হবে ।

চুল পরা বন্ধ করার উপায়
চুল পরা বন্ধ করার উপায়

৯. আধাকাপ নারিকেল তেল নিয়ে , তার মধ্যে ১-২ চামুচ মেথি দিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে নিন । ঠন্ডা হবার পর চুলের গোড়ায় ভালো করে মালিশ করুন । এক ঘন্টা পার মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে মাথা ভালো করে ধুয়ে ফেলুন ।
১০. ২০ মিলি খাটি সরিষার তেলের মধ্যে ৩০ টির মতো মেহেদি পাতা দিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে ননি । এর পর ঠান্ডা হেয়ে গেলেই মেসেজ করতে হবে চুলের গোড়ায় । ২০-৩০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলতে হবে ভেষজ শ্যাম্পু দিয়ে । সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন ব্যাবহার করবেন এই তেল ।

চুল পরা বন্ধ করার উপায় চুল ঘন করার উপায়

চুল পরা বন্ধ করার উপায় চুল ঘন করার উপায়
চুল পরা বন্ধ করার উপায় চুল ঘন করার উপায়

চুল ঘন কারার উপায় এর মধ্যে সবথেকে কার্যকরি পদ্ধতি হলো প্রটিন ভরপুর খাবার খাওয়া ।
প্রটিন এর অভাবে আপনার চুল পরে যেতে পারে । তাই আপনাকে নিয়মিত প্রটিন যুক্ত খাবার খেতে হবে । প্রটিন যুক্ত খাবার এর মধ্যে রয়েছে পালং শাক , সবুজ শাকসবজি যেমন বাধা কপি , লাল শাক চুলের কেরাটিন মুজবতে করে তুলে এবং চুল কে ঘন করে তুলতে সাহায্য করে ।

  • প্রতিদিন কমলা লেবু খেতে পারেন ।
  • স্ট্রবেরির মতো ফল খেতে পারেন ।
  • পেয়ারা আপনার চুল ঘন করতে সাহায্য করে । তাই পেয়ারা খেতে পারেন ।

চুল ঘন করার উপায় এর মধ্যে দ্রুত ফলাফল পাওয়া যায় শ্যাম্পু ব্যাবহার করলে । বিভিন্ন ধরনের শ্যামপু রয়েছে বাজারে । তার মধ্যে সব থেকে কার্যকরী হলো ভ্যালুমাইজিং শ্যাম্পু আর কন্ডিশন ।

এছারাও নারিকেল তেল নিয়মিত ব্যাবহার কতে পারেন ।

চুল সিল্কি করার উপায়

চুল কাটার স্টাইল
চুল কাটার স্টাইল
  • চুল সিল্কি করার উপায় হলো : আপনাকে একটি ডিম নিতে হবে এবং ডিমের সাদা অংশ টুকু একটি বাটিতে রাখতে হবে ।

  • এর পর দুই চামুচ মধু নিবেন ।

  • একটি বা দুইটি পাতি লেবুর রস নিতে পারেন

  • তার পর দুই-তিন চামুচ পাতি লেবুর রস নিয়ে ভালোভাবে মেশাতে হবে । মেশানোর পর আপনাকে ভালো ভাবে চুলের গোড়ায় মেশাতে হবে । তার পর ৪০-৫০ মিনিট রেখে দিয়ে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলবেন

  • ডিমের মধ্যে কাচা গন্ধ থাকে তাই ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে যেনো গন্ধটা না থাকে ।

  • পরর্বতিতে কন্ডিশনার দিয়ে পুনরায় চুল ধুয়ে নিবেন । ফলে আপনার চুল দ্রুত সিল্কি হয়ে যাবে । এই ভাবে সপ্তাহে ২-৩ দিন ব্যাবহার করতে হবে ।

চুল পড়া বন্ধ করার তেল


চুল পড়া বন্ধ করার তেল এর মধ্যে সবচেয়ে কার্যকরী হলো লেমন গ্রাস অয়েল । লেমনগ্রাস এসেনশিয়াল তেল আমাদের মাথার খুশুকি কমাতে অনেক সাহায্য করে । চুল পরার একটি বড়ো কারন হলো খুশকি ।

লেমনগ্রাসের সুগন্ধি অনেক ভালো এবং প্রশান্তিদায়ক । এটি ড্রাইস্কাল্পের সমস্যা অনেকটা দূর করে দেয় । আমরা নিয়মিত যেসকল শ্যাম্পু বা কন্ডিশনার ব্যাবহার করে থাকি তার সাথে যদি ৫-৬ ফোটা লেমনগ্রাস এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে আমাদের মাথায় দেই তাহলে আমাদের চুল পড়া অনেকটাই কমে যাবে ।

আপনি চুল পড়া বন্ধ করার তেল হিসাবে বার্গামট অয়েল তেল ব্যাবহার করতে পারেন। বার্গামট এসেনশিয়াল অয়েল এর বিশেষ বৈশিষ্ট হলো এটি অ্যান্টি মাইক্রোবিয়াল উপাদান সমপন্ন এবং এটি অবশ্যই স্বাস্থ্যকর স্কাল্পের জন্য খুবিই উন্নতগুনাগুণ সমপন্ন ।

বার্গামেট অয়েল তেল এর বৈশিষ্ট্য হলো : এটির প্রদাহ বিরোধী বৈশিষ্ট্য আমাদের স্কাল্পকে শীতল রাখে । আমাদের ঘামের সমস্যা এবং ফোরার মতো রোগ নিরাময় এর জন্য খুবিই কার্যকরী ।

চুল কাটার স্টাইল

চুল কাটার স্টাইল (2)
চুল কাটার স্টাইল (2)

আমাদের চারপাশে বিভিন্ন ধরনের চুলকাটার স্টাইল রয়েছে । কিছু চুল কাটিং রয়েছে যা আপনাদের অনেক পছন্দ হবে ।

চুল গজানোর উপায়

চুল কাটার স্টাইল (3)
চুল কাটার স্টাইল (3)

আপনি কি চুল গজানেরা উপায় খুজছেন । চুর গজােনোর জন্য বিভিন্ন ধরনের উপায় রয়েছে । তার মধ্যে অন্যতম হলো ম্যাসাজ করা । নিয়মিত চুল ম্যাসাজ করলে আমাদের মাথার স্কাল্পের রক্ত সাঞ্চালন বেরে যায় । যা চুল গাজোনর জন্য অনেক উপকারি ।

  • একটি চামুচে ভিটামনি ই নিয়ে মাথা অধাঘন্টা মেসেজ করতে হবে ।

  • ভিটামিন ই আমাদের চুলে জন্য প্রয়োজনীয় নিট্রশনের যোগান দেয় যা আমাদের চুল দ্রুত বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে ।
চুল কাটার স্টাইল (5)
চুল কাটার স্টাইল (5)

  • এছাড়াও আপনি চাইলে ভিটামিন ই এর সাথে চা এর নির্যাস মিশাতে পারেন । এই দুইটির মিশ্রন ভালো করে মাথার চুলের গোড়ায় লাগালে ভালো ফলাফল পাওয়া যায় ।

  • আপনাকে ১০-১৫ মিনিট ভালো করে আপনার মাথায় ঢলতে হবে এবং তার পর মোটা চিরনি দিয়ে মাথা আচরাতে হবে । এতে করে আপনার চুল গজানোর জন্য দ্রুত সহযোগিতা করবে ।

চুল কাটার মেশিন

চুল কাটার মেশিন
চুল কাটার মেশিন

চুল কাটার মেশিন এর অভাব নেই । তাদের মধ্যে রয়েছে ট্রিমার , শেভিং মেশিন । চুল কাটিং এর জন্য ট্রিমার ব্যাবহার করতে পারেন ।

চুল কাটার মেশিন (2)
চুল কাটার মেশিন (2)

Leave a Comment